স্টুডেন্ট দের জন্য অনলাইন ইনকাম শেরা ৪টি উপায় দেখেনিন এবং ইনকাম করুন লাইফ টাইম

আসসালামুআলাইকুম

বন্ধুরা আপনারা সবাই কেমন আছেন আশাকরি খুব ভালো আছেন ইনশাল্লাহ আমিও খুব ভালো রয়েছি তাই আজকে আপনাদের মাঝে নতুন একটি আর্টিকেল নিয়ে হাজির হলাম খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি আর্টিকেল হতে যাচ্ছে একটি এবং আমাদের ওয়েবসাইটের সর্বপ্রথম আর্টিকেল এটি তাই সবাই মনোযোগ সহকারে আর্টিকেলটি পড়বেন তাহলে আশা করবো আপনি সবকিছু ভালোভাবে বুঝে যাবেন আজকে আমাদের টপিকঃ হচ্ছে
কিভাবে স্টুডেন্ট রা অনলাইন থেকে প্রতিমাসে ভালো পরিমাণের একটি ইনকাম করতে পারবে

ইনকাম এর প্রথম টিপ্স

বর্তমানে করোনাকালীন অবস্থায় সবি স্কুল এবং কলেজ বন্ধ থাকায় অনেক স্টুডেন্টদের বাড়িতে সমস্যা হচ্ছে বা তারা নিজের খরচ চালাতে পারতেছে না তো তাদের জন্য আমি আজকে ভালো কিছু ইনকামের উপায় দেখিয়ে দিব যে কাজগুলো করলে আপনি অনলাইন থেকে লাইফ টাইম ইনকাম করতে পারবেন খুব সহজে তবে আপনাকে প্রথমে কাজগুলো শিখতে কিছুটা সমস্যা হবে বা অনেক সময় লাগতে পারে
আমি নিজেও একজন স্টুডেন্ট আমি অন্য কাজের পাশাপাশি ব্লগিং করি এতে করে আমার প্রতি মাসে ভালো পরিমাণে ইনকাম হয় আশাকরি আমি যদি আপনাদেরকে সবগুলো বিষয় ভালোভাবে বুঝিয়ে দিই তাহলে আপনিও পারবেন অনলাইন থেকে প্রতি মাসে ইনকাম করতে খুব সহজে!

কে না চায় অনলাইন থেকে ইনকাম করতে সবাই চায় কিন্তু পারে না অনলাইন থেকে ইনকাম করতে অনেকেই আছে যারা প্রথম কোন কাজে ব্যর্থ হলে তারা আর কাজ করে না আপনি যখন প্রথমবার কোন কাজ করবে সেই সময় আপনার ভুল হতেই পারে এর জন্য কাজ ছেড়ে দেওয়া যাবে না ভালো ভাবে মনোযোগ দিয়ে কাজ করতে হবে তাহলে আপনি যেকোনো কাজে সফল হতে পারবেন সর্বপ্রথম যেটা রাখতে হবে সেটা হলো নিজের ধৈর্য যদি আপনার ধৈর্য থাকে তাহলে আপনি অনলাইন থেকে ইনকাম করতে পারবেন

আর যারা অনলাইনে কাজ করে শর্টকাটে বড়লোক হওয়ার চিন্তা ভাবনা করেন
তারা কখনো সফল হতে পারেনা আপনাকে কিছুদিন ভালো ভাবে পরিশ্রম করতে হবে তারপর আপনার কাছে সেই কাজগুলো একেবারে সহজ মনে হবে এবং খুব সহজে সেই কাজগুলো আপনি করতে পারবেন বর্তমানে হাজার হাজার স্টুডেন্ট এবং বেকার মানুষ অনলাইনে ইনকাম করে তাদের নিজের ক্যারিয়ার গরতেছে যদি আপনার ইচ্ছে থাকে অনলাইনে ইনকাম করার তাহলে আপনাকে প্রথমে পরিশ্রম করতে হবে অবশ্যই কারণ যেকোন কাজে পরিশ্রম ছাড়া ভালো কোনো ফলাফল পাওয়া যায় না!

ফ্রি-ফাইয়ার গেম খেলে ইনকাম?

বর্তমানে বেশিরভাগ মানুষই বেকারত্ব এবং বাড়িতে বসে থাকে এবং বিশেষ করে ছাত্রছাত্রীদের জন্য অনেকেই ভাবতে পারেন ফিরিবার গেলে আবার কেমনে ইনকাম করে আপনার যদি ভালোভাবে ফ্রিফার সম্পর্কে সবকিছু জানা থাকে এবং আপনি ভালভাবে খেলতে পারেন তাহলে আপনি ইনকাম করতে পারবেন খুব সহজে ইনকাম করার দুটি মাধ্যম রয়েছে এক ইউটিউব এবং আরেকটি হচ্ছে ব্লগ ওয়েবসাইট বর্তমানে বাংলাদেশের বেশিরভাগ বড় বড় ইউটিউবার দেখবেন যারা গেম রিভিউ দিয়ে থাকে অথবা ফ্রি ফায়ার গেম এর ভিডিও শেয়ার করে থাকে আপনি যদি ভালোভাবে খেলতে পারেন এবং সব বিষয়ে ভালোভাবে জানা থাকে তাহলে আপনি একটি ইউটিউব চ্যানেল অথবা একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন

যেখানে প্রতিনিয়ত আপডেট দিবেন বিশেষ করে আপনি যদি একটি ইউটিউব চ্যানেল তাহলে আপনার জন্য ভালো হবে মোবাইল দিয়েও আপনি করতে পারবেন আপনি মোবাইল দিয়ে স্ক্রিন রেকর্ড করে দিয়ে গেম খেলবেন এবং পরে সেই ভিডিওটি ইউটিউবে আপলোড করে দিবেন যদি আপনার ভিডিওটি মানুষের কাছে ভালো লাগে তাহলে আপনার চ্যালেনের খুব অল্প দিনেই মনিটাইজেশন পেয়ে যাবেন তারপর থেকে আপনার ইনকাম শুরু হবে বাংলাদেশ আপনি একটি জিনিস লক্ষ্য করবেন যে বড় বড় ইউটিউবাররা কিন্তু ফ্রী ফায়ার দিয়েই বর্তমানে উপরে চলে গেছে

ব্লগিং (Website) করে অনলাইন থেকে ইনকাম

বর্তমানে করোনাকালিন সময়ে সব স্কুল-কলেজ এবং অফিস বন্ধ থাকার কারণে বেশিরভাগ মানুষের বর্তমান বেকারত্ব অনুভব করতেছে তো তারা চাইলে অল্প কিছু টাকা ইনভেস্ট করে অথবা ফ্রিতে অনলাইনে ব্লগিং শুরু করতে পারে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ওয়েবসাইটের কাজ শিখতে কিছুদিন সময় লাগবে কিন্তু আপনি যদি একবার সেখানে যান তাহলে আপনার লাইফ টাইম কাজ করতে পারবেন গুগল এডসেন্স সহ সব ধরনের অ্যাড নিয়ে কাজ করতে পারবেন বর্তমানে বাংলাদেশে এমন কিছু মানুষ রয়েছে যারা একটি ওয়েবসাইটের থেকে প্রতি মাসে প্রায় কয়েক লাখ টাকা ইনকাম করতেছে

যদি আপনি কাজ করেন তাহলে আপনিও পারবেন অনলাইনে ওয়েবসাইট থেকে ইনকাম করতে প্রথমে আপনি হালকা কিছু কোডিং শিখতে হবে তারপর একটি ওয়েবসাইট তৈরি করে সেখানে থিম দিয়ে ওয়েবসাইটটি কাস্টম ডিজাইন করবেন আর আপনি যদি একদম ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান তাহলে আপনাকে blogger.com বেছে নিতে হবে এখান থেকে আপনি একদম ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন এখানে ডোমেইন এবং হোস্টিং কিনতে হবে না এবং এখানে ভালোভাবে কাজ করলে আপনি গুগল অ্যাডসেন্স পেয়ে যাবেন খুব সহজে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ইনকাম করতে চান তাদেরকে বলব আপনি সর্বপ্রথম একটি blogger.com ওয়েবসাইট থেকে নিজের জন্য একটি ওয়েব খুলুন তারপর সেখানে কাজ করুন ভালোভাবে আশা করবো আপনি এখানে কয়েক মাস কাজ করলে নিজের সফলতা পেয়ে যাবেন

Youtube থেকে ইনকাম

ইউটিউব থেকে আপনিও পারবেন ইনকাম করতে যদিও এটি ইনকাম শুরু হবে আপনার কাজ করার কিছুদিন পর ইউটিউব এ আপনি যেকোন ধরনের রিলেটেড ভিডিও আপলোড করতে পারবেন এবং ইউটিউব এর কিছু শর্ত আছে যেগুলো আপনাকে পূরণ করতে হবে যেমন 1000 সাবস্ক্রাইব 4000 ঘন্টা ওয়াচ টাইম এই গুলো পূরণ করতে পারলে আপনার ইউটিউব থেকে ইনকাম শুরু হবে ইউটিউবে চাইলে আপনি সাধারণভাবে ব্লগিং করতে পারেন অথবা যেকোন বিষয়ের উপরে রিভিউ দিতে পারেন আপনার যেটা ভালো লাগে বা আপনাদের টপিকের উপর ভালো বুঝেন সেই টপিক নেই আপনি ভিডিও তৈরি করবেন সাধারণত ইউটিউবে কাজ করলে মোবাইল দিয়ে করাটা খুব বেশি একটা ভালো হয় না তারপরও আপনি প্রথম অবস্থায় মোবাইল দিয়ে করতে পারেন সমস্যা নেই এবং আপনি যদি শুধু মোবাইল এর শেয়ার করেন তাহলে আপনার কম্পিউটার লাগবে না!

মোবাইল দিয়ে সবকিছু করতে পারবেন সবকিছু সঠিক ভাবে করতে পারলেই এবং ভালো ধরনের ভিডিও ক্রিয়েট করে ইউটিউবে আপলোড করলে আপনি অল্প দিনেই কিন্তু মনিটাইজেশন পেয়ে যাবেন আর যদি আপনি খারাপ কোয়ালিটির কোনো ভিডিও আপলোড করেন সেগুলো মানুষ দেখবে না যদি মানুষ না দেখে তাহলে আপনার ইউটিউবে দেওয়া শর্তগুলো পূরণ হবে না এর জন্য সঠিক ভাবে সব কিছু করবেন তাহলে আপনি ইউটিউবে সফল হতে পারবেন আর ইউটিউবে এমনও চ্যানেল আছে যারা প্রতি মাসে 10 থেকে 20 লাখ টাকার উপর ইনকাম করা যায় এবং বড় বড় চ্যানেল রয়েছে অন্য দেশের আপনার ইনকাম ডিপেন্ড করবে ভিডিও দেখার উপর এ আপনার ভিডিও যত দেখবেন তত ইনকাম হবে অন্য দেশ থেকে যদি আপনার ভিডিওগুলো দেখে তাহলে ইনকাম আরো বেশি হবে

Android আপ্স তৈরি করে ইনকাম

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ তৈরি করে আপনি ইনকাম করতে পারবেন অনলাইন থেকে এর জন্য আপনাকে আগে অ্যাপ তৈরি করা শিখতে হবে এবং কোডিং শিখতে হবে যদি আপনি সবকিছু ভালোভাবে শিখতে পারেন তারপর আপনি ভালো কিছু অ্যাপ তৈরি করবেন অ্যান্ড্রয়েডের জন্য বিভিন্ন ধরনের অ্যাপ তৈরি করতে পারেন ইনকাম অ্যাপস রয়েছে ব্রাউজিং অ্যাপস রয়েছে গ্যালারি অ্যাপস রয়েছে যেকোনো ধরনের একটি অ্যাপস তৈরি করুন এবং আপনার ফেসবুক থেকে অর্ডার নিতে পারবেন ক্লাস বিখ্যাত মার্কেটপ্লেস ফাইবার থেকে অর্ডার নিতে পারবেন অ্যাপ তৈরি করা ফাইভারে কোটি কোটি লোক কাজ করে শুধুমাত্র বাংলাদেশের নয় পৃথিবীর সব দেশের কমবেশি মানুষ এই ফাইভার এবং আপওয়ার্ক এর সাথে যুক্ত এবং সেখানে আপনি যেকোনো ধরনের কাজ পাবেন

Fivver & upwork

এই দুটি হচ্ছে বিশ্বের মধ্যে বিখ্যাত দুটি মার্কেটপ্লেস যেখানে আপনি নিজে কাজ দিতে পারবেন এবং অন্যের কাজ নিতে পারবেন এখানে বাংলাদেশসহ পৃথিবীর সব দেশের লোক কাজ করে এবং এখানে ইনকাম বেশি সাধারণত আমাদের বাংলাদেশে যেকোনো কাজের মূল্য খুবই কম কিন্তু আপনি যদি এই মার্কেটপ্লেসে কাজ করতে পারেন তাহলে আপনার একদিনে ইনকাম অনেক টাকা হবে আমাদের বাংলাদেশের যদি কোন বায়ার এর সাথে কাজ করেন তাহলে সে আপনাকে 10 ডলারের অধিক দিবেনা কিন্তু আপনি যখন এই দুই ওয়েবসাইটে অন্যদেশের বায়ারদের সাথে কাজ করবেন তখন আপনি একটি কাজের জন্য মিনিমাম হলেও 50 থেকে 100 ডলার পর্যন্ত পাবেন

গ্রাফিক ডিজাইন করে ইনকাম

আপনি যদি ভালোভাবে গ্রাফিক ডিজাইন শিখতে পারেন তাহলে আপনি প্রতি মাসে অনেক টাকা ইনকাম করতে পারবেন কারণ গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজে ইনকাম বেশি আপনি যদি ছোট একটি জিনিস ডিজাইন করে দেন তাহলে আপনি মিনিমাম 50 ডলার পাবেন এবং অবশ্যই আপনার গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজ করতে হলে ল্যাপটপ পিসি অথবা কম্পিউটার লাগবে মোবাইল দিয়ে কাজ করতে পারবেন না

এবং উপরের দুটি মার্কেটপ্লেসের কথা বলে দেওয়া হয়েছে আপনার এখানে কাজ করতে পারেন এখানে অন্য দেশের বাইরে কাজ করলে আপনার ইনকাম বেশি দিবে তবে হ্যাঁ আপনাকে অবশ্যই দক্ষ একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনার হতে হবে তাহলে আপনি সেই মার্কেটপ্লেস গুলোতে কাজ পাবেন সর্বপ্রথম আপনি কোর্স কতবার ইউটিউবে ভিডিও দেখে আগে গ্রাফিক ডিজাইন কেমন করে করে সেগুলো শিখতে হবে এখানে অনেক ধরনের ডিজাইন রয়েছে আপনি চেষ্টা করবেন সবগুলো শেখার জন্য তাহলে আপনি সবগুলো কাজ করতে পারবেন

শেষ কথা

আপনি অনলাইনে যেকোন কাজ করেন অবশ্যই আপনার দক্ষতা থাকা লাগবে যদি আপনার কাজের দক্ষতা না থাকে তাহলে আপনি কোন কাজে ভালোভাবে করতে পারবেন না এজন্য যেকোনো কাজ আপনি কিছুদিন সময় নিয়ে ভালোভাবে দেখবেন তারপর সে কাজটি করার জন্য চেষ্টা করবেন তো আশা করি পোস্টটি আপনার কাছে ভালো লেগেছে যদি ভালো লাগে তাহলে অবশ্যই পোষ্টটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন এবং কমেন্টে জানিয়ে দিবেন আপনার মতামত ধন্যবাদ

Leave a Comment

Your email address will not be published.